বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম৭ই মার্চ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভা করার নির্দেশ - বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম
বৃহস্পতিবার, ২১ জুন, ২০১৮, ৭ আষাঢ়, ১৪২৫, ৮ শাওয়াল, ১৪৩৯, সকাল ১০:৪৪

প্রকাশিতঃ মার্চ ০৭, ২০১৮ ৪:১৬ অপরাহ্ণ
A- A A+ Print

৭ই মার্চ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভা করার নির্দেশ

এ বছর ৭ মার্চ ভিন্নভাবে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় এবার দিনটিতে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে ‘বিশ্ব প্রমাণ্য ঐতিহ্য’ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ অসামান্য অর্জন। এ বিষয়ে গত ৪ মার্চ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণের গুরুত্ব ও তাৎপর্য বিষয়ে শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ নির্দেশনা মঙ্গলবার জরুরি ভিত্তিতে দেশের সব মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অঞ্চলের পরিচালক, অধ্যক্ষ, জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবং প্রধান শিক্ষককে পাঠানো হয়েছে।

১৯৭১ সালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান) বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণের মাধ্যমে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ডাক দেন। গত বছরের ৩০ আক্টোবর বঙ্গবন্ধুর ওই ভাষণকে ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো। এর ফলে এ ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড রেজিস্টারে নিবন্ধিত হয়েছে। এটিই প্রথম কোনো বাংলাদেশি দলিল, যা আনুষ্ঠানিক ও স্থায়ীভাবে সংরক্ষিত হবে। বর্তমানে ডকুমেন্ট ও সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৪২৭টি।

 বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

৭ই মার্চ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভা করার নির্দেশ

বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮ ৪:১৬ অপরাহ্ণ

এ বছর ৭ মার্চ ভিন্নভাবে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় এবার দিনটিতে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টারে অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে ‘বিশ্ব প্রমাণ্য ঐতিহ্য’ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ অসামান্য অর্জন। এ বিষয়ে গত ৪ মার্চ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণের গুরুত্ব ও তাৎপর্য বিষয়ে শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের নিয়ে আলোচনা সভা করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ নির্দেশনা মঙ্গলবার জরুরি ভিত্তিতে দেশের সব মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অঞ্চলের পরিচালক, অধ্যক্ষ, জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবং প্রধান শিক্ষককে পাঠানো হয়েছে।

১৯৭১ সালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান) বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণের মাধ্যমে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ডাক দেন। গত বছরের ৩০ আক্টোবর বঙ্গবন্ধুর ওই ভাষণকে ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো। এর ফলে এ ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড রেজিস্টারে নিবন্ধিত হয়েছে। এটিই প্রথম কোনো বাংলাদেশি দলিল, যা আনুষ্ঠানিক ও স্থায়ীভাবে সংরক্ষিত হবে। বর্তমানে ডকুমেন্ট ও সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৪২৭টি।

সম্পাদক ও প্রকাশক : খন্দকার রাকিব ।
ফকির বাড়ি, ৫৫৪৫৪ বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭২২৩৩৬০২১
ইমেইল : rakibulbsl@gmail.com, barisalcrimenews@gmail.com